Posted in লাইফ স্টাইল

বউ শুধু একটু আরাম করে ঘুমাবে বলেই লোকটা সারারাত ট্রেনে দাঁড়িয়ে

ছবিটায় একটু খেয়াল করলেই বোঝা যায় একজন সুস্বাস্থ্যবান পুরুষ দাঁড়িয়ে আছে,পাশেই সিটে একজন আপাদমস্তক পর্দাসীন নারী ঘুমিয়ে আছে।

ময়মনসিংহ টু চট্টগ্রাম,সারারাতের ট্রেন ভ্রমণ। এই ব্যাক্তি দুই পায়ে সারারাত দাঁড়িয়ে ছিল। এমন না যে সে সিট পায়নি, তিনি দাঁড়ায়ে ছিলেন কারণ তার সিটে তাঁর বউ ঘুমিয়ে ছিল।

এমন ও না যে তার বউ অসুস্থ ছিল, শুধু বউ একটু আরাম করে ঘুমাবে বলেই লোকটা সারারাত দাঁড়িয়ে ছিল। মাঝে মাঝে ট্রেনের ঝাঁকুনিতে বউ-এর ঘুম ভেঙে যায়,লোকটা হাটু গেড়ে বউ এর পাশে বসে,মাথায় হাত রেখে কানের কাছে মুখ নিয়ে বার বার জিজ্ঞেস করে কিছু খাবে না,কোন অসুবিধা হচ্ছে কিনা।

আমি বললাম ভাই আমার পাশে বসেন।উনি বললেন..

‘ভাই,আমি বসে গেলে আমার জায়গায় অন্য কেও দাঁড়িয়ে থাকবে, আমার বউ অগোছালো হয়ে ঘুমাচ্ছে, সে কমফোর্ট ফিল করবে না।’

নারীটা এখানে যতই স্বার্থপর, হৃদয়হীনা হোক না কেন পুরুষটার মহানুভবতাকে খাটো করে দেখার অবকাশ নেই। নারী নির্যাতনের হাজারো সংবাদের পাশে কোনও নারীর জন্য স্বামীর সারারাত দাঁড়িয়ে থাকাটা সৌভাগ্যই বটে। এই সম্মান,ভালোবাসা টাকা দিয়ে উপহার দেয়া যায় না। এই ভালোবাসা সব নারীর কপালে জুটেও না।

Posted in লাইফ স্টাইল

হার্ট অ্যাটাকের আগেই সিগন্যাল দেবে হৃদপিণ্ড

বিশ্বজুড়ে যেভাবে দূষণের মাত্রা বেড়ে চলছে তাতে শিশু থেকে বুড়ো, সকলের মধ্যেই দেখা দিচ্ছে শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা। যৌবনে প্রবেশ করার আগেই অনেকের মধ্যে হার্ট অ্যাটাকের প্রবণতা দেখা যায়। কিন্তু গোবেষণা বলছে, হার্ট অ্যাটাক আসার আগে থেকেই আপনার শরীরকে ক্রমাগত সিগন্যাল দেয় হৃদপিণ্ড। জানেন কীভাবে?

এই ৬টি বিষয়ই আপনাকে বলে দেবে আপনার হার্ট অ্যাটাক আসতে চলেছে-
১) দুর্বলতা:
হার্টের সমস্যার জন্য ধমনীতে রক্তের প্রবাহ কমে যায়। আর তার ফলেই কমতে থাকে শরীরে জোর। ফলে দুর্বলতা অনুভব করবেন আপনি।

২) ঝিমনি:
অদ্ভূত ভাবে একটি ঝিমুনি অনুভব হবে প্রতি মুহূর্তে। সেই সঙ্গে রক্তের প্রবাহ কমে যাওয়ার ফলে শরীরে একটা শীতল ভাবও অনুভূত হবে হার্ট অ্যাটাক আসার আগেই।
৩) বুকে ব্যাথা:
হার্ট অ্যাটাক আসার প্রায় এক মাস আগে থেকেই বুকে ব্যথা অনুভূত হতে শুরু করবে। শুধু তাই নয়, বুকে থেকে ব্যথা শরীরের অন্য অংশেও ছড়িয়ে পড়বে ক্রমাগত। বিশেষ করে পীঠ, হাত ও কাঁধে ছড়িয়ে বড়বে ব্যথা।

৪) ঠাণ্ডা লাগার প্রবণতা:
হার্ট অ্যাটাক আসার আগে কিছুদিন আগে থেকেই ঠাণ্ডা লাগার একটা প্রবণতা বেড়ে যায়। ফলে আগে থেকেই সাবধান হয়ে যাওয়া অনেকটাই ভালো।

৫) ক্লান্তি:
একটু কাজ করলে বা হাটাহাটি করলেই শরীরের মধ্যে ক্লান্তি অনুভব করা। সেই সঙ্গে হাপ ধরে যাওয়া। এমন সমস্যা দেখা দিলেই সঙ্গে সঙ্গেই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। হতে পারে আপনার হার্ট দুর্বল। যে কোনও মুহূর্তে অ্যাটাক আসতে পারে।

৬) নিশ্বাসে সমস্যা:
এটিও একটি নির্দেশ হার্টের পক্ষ থেকে যে তা অত্যন্ত দুর্বল। ছোটো বড় যে কোনও কাজ করলেই নিশ্বাসে সমস্যা দেখা দিতে পারে। আর তা হলেই সঙ্গে সঙ্গে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।